ই-পেপার

স্বাধীনতাবিরোধী চক্রের ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে দেশটাকে এগিয়ে নিতে হবে : মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি শিল্পমন্ত্রী আমু

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: March 30, 2018

সূর্যালোক নিউজ : স্বাধীনতাবিরোধী বিএনপি-জামায়াত চক্রের সব ধরনের ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে বাংলাদেশকে কাঙ্ক্ষিত লক্ষে এগিয়ে নিতে সহায়তা করার জন্য জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

শিল্পমন্ত্রী ৩০ মার্চ ঝালকাঠি সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে হাটবাজারের ইজারালব্ধের অর্থ থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে অনুদানের চেক এবং বিআরডিবির দরিদ্র সদস্যদের মাঝে ঋণ সহায়তার অর্থ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিতি হিসেবে বক্তৃতাকালে এ আহ্বান জানান। সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ সুলতান হোসেন খানের সভাপতিত্বে জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক, পুলিশ সুপার মোঃ জোবায়েদুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, বিআরডিবির উপপরিচালক শ্যামা প্রসাদ দে প্রমুখ বক্তৃতা করেন। সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, বিআরডিবির সদস্যবৃন্দসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

আমির হোসেন আমু বলেন, মুক্তিযোদ্ধার জীবনবাজী রেখে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন। অনেকেই দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছেন। বেঁচে থাকাদের এখন জাতিকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করতে কাজ করতে হবে। বর্তমান প্রজন্মকে তাদের বীরত্বগাাঁথাসহ স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে। এলাকায় এলাকায় মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষে জনমত গড়ে তুলতে হবে।

শিল্পমন্ত্রী আমু বলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান পাকিস্তানীদের খুশি করতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, মূল্যবোধ ধ্বংস করেছিল। মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করাসহ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ দলীয়করণ করা হয়েছিল। সাম্প্রদায়িক রাজনীতি প্রতিষ্ঠা, স্বাধীনতাবিরোধী শক্তিকে রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত করাসহ পাকিস্তানী ভাববধারার জিন্দাবাদের রাজনীতি চালু করেছিল।

আমু বলেন, দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রামের পর বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, মূল্যবোধ পুনঃপ্রতিষ্ঠিত হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান বেড়েছে। জাতির জনকের স্বপ্নের সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠনের জন্য মানুষকে সুখী রাখতে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। আজ সারাবিশ্বে বাংলাদেশ মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আগামীতে বিএনপি-জামায়াতের মতো কোন অপশক্তি ক্ষমতায় আসলে, দেশের সব উন্নয়ন থেমে যাবে। বাংলাদেশ পিছিয়ে যাবে। মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানহানী ঘটবে, কথা বলার সুযোগও থাকবে না। এজন্য শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করার মাধ্যমে আগামীতেও তাকে ক্ষমতায় আনতে হবে।

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে অনুদানের চেক এবং বিআরডিবির সদস্যদের মাঝে ঋণ সহায়তার অর্থ তুলে দিয়ে বিতরণ কর্মসূচি উদ্বোধন করেন। কর্মসূচির আওতায় ২৯৬ মুক্তিযোদ্ধাকে সহায়তা হিসেবে চার লক্ষাধিক টাকা এবং বিআরডিবির ৪০ জন সদস্যকে ঋণ বাবদ ১০ লাখ টাকা প্রদান করা হবে।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন