ই-পেপার

ইসলামের সার্বিক কল্যাণ ও মাদ্রাসা শিক্ষা উন্নয়নে আওয়ামী লীগের অবদান বেশি : শিল্পমন্ত্রী আমু

নিজস্ব প্রতিবেদক | আপডেট: February 11, 2018

সূর্যালোক নিউজ : দেশে ইসলামের সার্বিক কল্যাণ ও মাদ্রাসা শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে যা কিছু হয়েছে তা আওয়ামী লীগ করেছে। ইসলামের নাম ধরে যারা ক্ষমতায় ছিল এ ব্যাপারে তাদের কোন অবদান নেই বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

শিল্পমন্ত্রী শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি’১৮) ঝালকাঠির হাজী জয়ন উদ্দীন দ্বীনি দাখিল মাদ্রাসার বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন। বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর একেএম ছায়েফ উল্যা এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন।

মাদ্রাসার এডহক কমিটির সভাপতি মোঃ মাইনুল ইসলামের সভাপতিত্বে জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হক, পুলিশ সুপার মো. জোবায়েদুর রহমান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সরদার মোঃ শাহ আলম, জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ডক্টর মুহম্মদ আবুল কালাম আজাদসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপসি’ত ছিলেন।

শিল্পমন্ত্রী আমু বলেন, কারা ইসলামের ভাল চায় আজ তা উপলব্ধি করতে হবে। স্বাধীনতার পর জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ড ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন। বিশ্ব ইজতেমার জায়াগাও তিনি দেন। সে সময়ে মদ-জুয়া বন্ধ করা হয়। পরবর্তীতে ইসলামের নামধারীরা মদের লাইসেন্স ছড়িয়ে দেয় এবং যাত্রাগানের নামে অশ্লীলতার প্রশ্রয় দিয়েছিল।

আমির হোসেন আমু বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুগোপযোগী শিক্ষানীতি দিয়েছেন। কিছু কিছু মাদ্রাসা শিক্ষকরা না বুঝে এর বিরোধীতা করেছিল। তারা বলেছিল, এ শিক্ষানীতির কারণে দেশের মাদ্রাসাগুলো বন্ধ হয়ে যাবে। একটি মাদ্রাসাও বন্ধ হয়নি। এ শিক্ষার আরও প্রসার ঘটেছে এবং আধুনিক হয়েছে। আজ মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা সর্বক্ষেত্রে অংশগ্রহণের সুযোগ পাচ্ছে।

শিল্পমন্ত্রী আমু পরে বিভিন্ন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন